1. admin@shadhinkantho24.com : admin@shadhinkantho24.com :
  2. shadhinkantho24@gmail.com : sr 2013 : sr 2013
বৃহস্পতিবার, ০৯ এপ্রিল ২০২০, ১১:৩৩ অপরাহ্ন
ব্রেকিং নিউজঃ
স্বাধীন কন্ঠ ২৪. কম পরিবারের পক্ষ থেকে আপনাকে স্বাগতম
শিরোনাম
ত্রান বিতরণের পাশাপাশি সচেতনতামূলক প্রচারণা চালাচ্ছেন আইনজীবী পারভেজ আকন বিপ্লব আজ সাংবাদিক শাখাওয়াত হোসেন এর শুভ জন্মদিন আবারও মধ্যরাতে ক্ষুদার্থদের দ্বারে পারভেজ আকন বিপ্লব মধ্যরাতে কর্মহীন ও ক্ষুদার্ত পরিবারের পাশে যুবদল নেতা পারভেজ আকন বিপ্লব ষষ্ঠ বারের মত বরিশালে বাংলাদেশ মানবাধিকার কমিশনের খাদ‍্য বিতরন বরিশালে কর্মহীন মানুষের পাশে দাড়ালেন ইঞ্জিঃ সেলিম হাসান কাশিপুর ইউনিয়ন চেয়ারম্যান লিটন মোল্লা’র উদ্যোগে জীবাণুনাশক স্প্রে কার্যক্রম করোনা সচেতনতায় মাঠ পর্যায়ে কাজ করছে মহিপুর থানা পুলিশ মেহেন্দিগঞ্জে নিউ গ্রীন এ্যাপোলো ফিজিওথেরাপি সেন্টারে হাত ধোয়ার ব্যবস্থা করলেন কতৃপক্ষ সরকারি বিএম কলেজ রসায়ন বিভাগের উদ্যোগে হ্যান্ড স্যানিটাইজার বিতরণ

চায়ে চিনি খাওয়া বন্ধ করুন, নয়তো মস্তিষ্ক বিষণ্ণ হবে!

  • শনিবার, ২৮ ডিসেম্বর, ২০১৯
  • ২৯ বার পড়া হয়েছে

শীতকালে চা-কফি খাওয়ার পরিমাণ অনেকটাই যায় বেড়ে। চা-কফি খাওয়া মানেই চিনি খাওয়া। এভাবে চা-কফির মাধ্যমে প্রতিদিন কতটা চিনি খাওয়া হয়ে যায়, তা জানেন কী? সমস্যা কিন্তু এই চিনিতে, চা-কফিতে কোন অসুবিধা নেই। মেডিক্যাল হাইপোথিসিস জার্নালে প্রকাশিত এক গবেষণার তথ্য হচ্ছে- চিনি শুধু ওজন কিংবা পেটের মেদই নয়, ডেকে আনে বিষণ্ণতাকেও। 

ইউনিভার্সিটি অব ক্যানসাসের গবেষকরা চিনি গ্রহণের পরে মানুষের শারীরবৃত্তীয় ও মনস্তাত্ত্বিক পরিবর্তনের তথ্য পর্যবেক্ষণ করে এই সমস্যাটি চিহ্নিত করেছেন।

চা-কফির সঙ্গে তো বটেই, এর সঙ্গে শীতকালে বিভিন্ন ধরনের মিষ্টি জাতীয় খাবার গ্রহণেরও পরিমাণ যায় বেড়ে। এতেও একই রকম ক্ষতিকর প্রভাব তৈরি করে। এমনকি অতিরিক্ত চিনি গ্রহণে দেখা দেয় অ্যালকোহলের মতো নেতিবাচক প্রভাব।

চিনি আমাদের শরীরে ড্রাগের মতো কাজ করে। মিষ্টি খাওয়ার কিছুক্ষণ পর মন ভালো থাকে, কিন্তু তারপর মস্তিষ্ক বিষণ্ণ হয়ে পড়ে। তাই ‘ওয়াইট পয়জন’ খ্যাত এই চিনিকে যত সম্ভব খাদ্যতালিকা থেকে দূরে রাখতে হবে।

২০১৬ সালে ফার্মিংহাম হার্ট স্টাডির গবেষকরা ১ হাজার জনের উপর করা একটি গবেষণা চালিয়ে দেখেছেন যে, যারা যত বেশি মিষ্টি জাতীয় খাদ্য গ্রহণ করে থাকেন তাদের পেটের মেদ হবার সম্ভবনা তত বেশি। পেটের এই মেদ হার্টের সমস্যা এবং ডায়াবেটিসের সমস্যার জন্য অনেকাংশেই দায়ী।

বাড়তি চিনি মানেই বাড়তি শর্করা যা দ্রুত পরিপাক হয়ে আপনার রক্তের মধ্যে মিশে গিয়ে তাৎক্ষণিকভাবে শক্তি উৎপন্ন করতে সাহায্য করে। তবে শরীরের মেটাবলিজমের কারণে কিছুক্ষণ পরেই সেই শক্তি চলেও যায়। তাই চিনি খান ভেবে চিন্তে, নইলে বিপদে পড়বেন।

সংবাদটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো সংবাদ পড়ুন

Categories

©  স্বাধীন কন্ঠ ২৪. কম কর্তৃক সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত